Monday, 29 November, 2021

সর্বাধিক পঠিত



বঙ্গবন্ধুর ২য় বিপ্লব ও কৃষির প্রাসঙ্গিকতা- শেষ পর্ব


Article Syed Arif Azad Sir

কৃষিবিদ ডঃ সৈয়দ আরিফ আজাদ (সাবেক মহাপরিচালক, মৎস্য অধিদপ্তর, বাংলাদেশ ও নির্বাহী সদস্য, কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন, বাংলাদেশ (কেআইবি) ঢাকা, মার্চ ২০২০) স্যার এর ধারাবাহিক বঙ্গবন্ধুর ২য় বিপ্লব ও কৃষির প্রাসঙ্গিকতা লেখাটির সর্বশেষ পর্ব আর প্রকাশিত হলো ।

আগের পর্ব গুলো দেখে নিতে পারেন বঙ্গবন্ধুর ২য় বিপ্লব ও কৃষির প্রাসঙ্গিকতা এখান থেকে । 

সমাপনী মন্তব্যঃ

আরো পড়ুন
কিভাবে ছাদে দারুচিনি চাষ করা যায়, জেনে নিন তার আদি-অন্ত

দারুচিনি! প্রাচীনতম একটি মশলা। এটি মিষ্টি, পানীয় এবং চা জাতীয় খাবারে বাড়তি স্বাদ যোগ করে। দারুচিনি গাছের সবই কাজে লাগে। Read more

টবে পুদিনা পাতার চাষ,

সুগন্ধি পাতা পুদিনার  ব্যবহার অনেক রকম। তরি-তরকারির সাথে সুগন্ধি হিসেবে পুদিনা পাতা ব্যবহার করা হয়। বিভিন্ন রকমের বড়া তৈরির সময় Read more

কৃষি, শিল্প, বানিজ্য, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্য রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নের ২২টি লক্ষ্য অর্জনে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনা এর নেতৃত্বে  বর্তমান সরকার। ২২টি লক্ষ্যের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে-কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জনস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা,  সুপেয় পানির ব্যবস্থা, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার দুই ডিজিটে উন্নীত করা, আবাসনের ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ উৎপাদন নিশ্চিত করা, নিরক্ষরতামুক্ত দেশ গড়া, অবৈতনিক শিক্ষা চালু করা,  বেকারত্বের হার হ্রাস, কৃষি খাতে শ্রমশক্তি কমিয়ে শিল্পে প্রবৃদ্ধি, শিশু ও মাতৃ মৃত্যু হ্রাস,  প্রজনন সেবার উন্নয়ন, খাদ্য ও পুস্টি চাহিদা পূরণ, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া ইত্যাদি।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যেও অর্থনীতিতে স্বস্তির আভাস মিলছে। করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বজুড়ে যখন অর্থনীতিতে ধস নেমেছে, তখনও বাংলাদেশে এশিয়ার মধ্যে সর্বোচ্চ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ৫.২০%। । এই করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যেও যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি পোশাক রফতানিতে বাংলাদেশের অবস্থান ষষ্ঠ স্থান থেকে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে। করোনার এই সময়ে প্রতিদিনই প্রবাসীরা আগের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশি রেমিটেন্স পাঠাচ্ছেন। গত বছরের জুলাই মাসের চেয়ে এ বছরের জুলাইয়ে রেমিটেন্স বেড়েছে ৬৩ শতাংশ। বর্তমান রিজার্ভের পরিমাণ ৩৩ দশমিক শূন্য ৭ বিলিয়ন ডলার। (আগস্ট ২০২০)।

গত ২২ জুন অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে রিজার্ভ ৩৩ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে। প্রতি মাসে সাড়ে তিন বিলিয়ন ডলার আমদানি খরচ হিসাবে এই রিজার্ভ দিয়ে নয় মাসের বেশি সময়ের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব। আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী, একটি দেশের কাছে অন্তত তিন মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর সমপরিমাণ বিদেশি মুদ্রার মজুদ থাকতে হয়। এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর রক্তের উত্তরাধিকার তাঁর সুযোগ্য তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনা এর মাধ্যমে আজ বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন সত্য হতে চলেছে।

আগস্টের এই শোকের মাসে জাতির জনকের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনারবাংলা বিনির্মাণে  জননেত্রী শেখ হাসিনা এর অগ্রযাত্রায় কার্যকর অংশগ্রহণের সুদৃঢ় প্রত্যয়।  আর হৃদয়ের গভীর কন্দরে জনকের নাম।

“Death is not thy last destination, O friend of Bengal,

Thy life is but an inextinguishable flame

That’ll burn and radiate light for all times to come”. Elangbom Nilkanta Singha, Poet of the Indian state of Manipur[1];

[আত্মকথনঃ বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা দুঃসাহস, কারণ তার জীবন ও কর্ম এতই বিস্তৃত যে তার কূলকিনারা করা দুষ্কর। স্কুল জীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একটি প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের ছায়া তলে থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি আগ্রহ। তখনও তিনি বঙ্গবন্ধু নন, শেখ মুজিব। মনে আছে ১৯৬৯ সালে, সম্ভবত  আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা থেকে মুক্তি লাভের পর, তিনি রেলপথে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত সফর করেন। ওই সময় আব্বার সাথে তাঁকে ঠাকুরাকোনা রেল স্টেশনে দেখতে আসি। মনে-পড়ে লোকজনের ভিড়ে আব্বার কাঁধে চড়েছিলাম তাকে দেখার জন্য। হাজার হাজার লোক তাঁকে দেখতে আসে।

১৯৭০ এর নির্বাচনে আমাদের এলাকায় ওয়াজেদ আলী (ন্যাপ প্রার্থী) অনেক শক্ত প্রতিরোধ করলেও বঙ্গবন্ধুর অমিত শক্তিতে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আব্দুল মমিন জয়ী হন। তখন চারিদিকে বঙ্গবন্ধুর  জয়জয়কার।   মানুষের মনে তখন অনেক আশা। তারপর বঙ্গবন্ধুর নামে যুদ্ধ। স্বাধীনতা। বেশিদিন সময় দেয়নি হায়নারা।  ১৯৭৫ সালে কলেজে পরার সময় তিনি যেদিন নিহত হন, সেদিন ভয়ভীতির মাঝেই কলেজে আসি কি হয় দেখার জন্য। সব খাঁ খা।  সম্ভবত সহপাঠী   চান মিয়ার সাথে আওয়ামীলীগ অফিসে যাই। জনশূন্য অফিস এবং পথঘাট। সে আরেক ইতিহাস।

স্কুল কলেজের গণ্ডি পেরিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে এসে তাঁর আদর্শ ও জীবনালেখ্য নতুন পথ  দেখায়।  প্রিয় ছাত্র সংগঠন তখন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে খুব শক্তিশালী। নিজে শামসুল হক হল শাখায় সহ সভাপতি সহ  বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করি। বাকসু সভাপতি তখনকার ছাত্রনেতা মরহুম জনাব আব্দুল মান্নান পরে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি ও আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক ও প্রচার সম্পাদক হন। পরবর্তীতে কর্মজীবনে একসময় বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ ও কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশনের কার্যকরী সদস্য হিসেবে আওয়ামীলীগের আরেক নেতা  জনাব বাহাউদ্দিন নাসিম এর সংস্পর্শে এসে নতুন অনুপ্রেরণা পাই বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে কাজ করার।  তারই  ধারাবাহিতায় প্রকাশ এই রচনা। আগ্রহী পাঠকের সামান্য অনুসন্ধিৎসা মিটে থাকলে আমার প্রয়াস স্বার্থক]

Reference


[1] https://www.7thmarch.com/people-on-bangabandhu/  রিট্রাইভড অন ২ মার্চ ২০২০।

One comment on “বঙ্গবন্ধুর ২য় বিপ্লব ও কৃষির প্রাসঙ্গিকতা- শেষ পর্ব

Kbd Mobinul Islam

জাতির জনকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা। বঙ্গবন্ধুর অবদান কৃষিবিদ ক্লাস ওয়ান। স্যার আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জাতির জনক এবং কৃষি সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে বিস্তারিত তুলে ধরার জন্য। ❤❤

Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *