Saturday, 20 July, 2024

সর্বাধিক পঠিত

গবাদি পশু হৃষ্টপুষ্টকরণে করনীয় কি?


কুরবানির গরু

গবাদি পশু হৃষ্টপুষ্টকরণের জন্য কিছু কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে। লাভজনক পশু খামার পরিচালনা করার জন্য সঠিক পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন। নিম্নলিখিত বিষয়গুলো মেনে চলা উচিত:

১. পুষ্টিকর খাদ্য সরবরাহ:

গবাদিপশুর সুষম খাদ্য তাদের স্বাস্থ্য ও উৎপাদনশীলতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আরো পড়ুন
বৃষ্টি ও ভারী বর্ষণের কারণে বাজারে কাঁচাপণ্যের দাম বেশি : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

বাংলাদেশের বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু জানিয়েছেন যে বৃষ্টি, ভারী বর্ষণ এবং বন্যার কারণে বাজারে কাঁচাপণ্যের দাম বেড়ে গেছে। এছাড়াও Read more

কৃষিকাজে সম্পৃক্ত হয়ে চাষাবাদ বাড়ানোর তাগিদ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন যে গ্রামে বেশির ভাগ মানুষ কৃষিকাজ ছেড়ে দিয়েছেন, তবে কৃষিকাজে সম্পৃক্ত হয়ে ভালো উপার্জন করা সম্ভব। Read more

  • সুষম খাদ্য: খাদ্যে প্রয়োজনীয় প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন, ও খনিজ পদার্থ থাকতে হবে।

একটি সুষম খাদ্য মিশ্রণ

  1. শস্য ও দানা খাদ্য: ৪০%
  2. প্রোটিন সমৃদ্ধ খাদ্য: ৩০%
  3. মিনারেল মিশ্রণ: ২%
  4. সবুজ ঘাস: ১০%
  5. খড় ও শুকনো ঘাস: ১৫%
  6. মোলাসেস ও অন্যান্য পরিপূরক: ৩%
  • সবুজ ঘাস ও খড়: পশুকে পর্যাপ্ত পরিমাণে সবুজ ঘাস ও খড় খাওয়াতে হবে।
  • নির্দিষ্ট পরিমাণে দানা খাদ্য: প্রয়োজন অনুযায়ী দানা খাদ্য (যেমন গম, ভুট্টা) দিতে হবে।
  • অন্যান্য খাদ্য: যেমন সয়াবিনের খোল, তিলের খোল, সরিষার খোল ইত্যাদি।

২. পানি সরবরাহ:

  • পর্যাপ্ত এবং পরিষ্কার পানির ব্যবস্থা করতে হবে যাতে পশুরা সবসময় পানি পান করতে পারে।

৩. স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা:

  • নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা: পশুর স্বাস্থ্য নিয়মিত পরীক্ষা করতে হবে।
  • টিকা ও ওষুধ: রোগ প্রতিরোধের জন্য নিয়মিত টিকা দিতে হবে এবং প্রয়োজন অনুযায়ী ওষুধ ব্যবহার করতে হবে।
  • পরজীবী নিয়ন্ত্রণ: গবাদি পশুকে পরজীবীর আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে নিয়মিত পরজীবী নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করতে হবে।

৪. আবাসন ব্যবস্থা:

  • পর্যাপ্ত স্থান: পশুর আবাসন জায়গা যথেষ্ট বড় ও আরামদায়ক হতে হবে।
  • পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা: পশুর থাকার জায়গা নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে।
  • আলো ও বায়ু চলাচল: পর্যাপ্ত আলো ও বায়ু চলাচলের ব্যবস্থা থাকতে হবে।

৫. সঠিক ব্যবস্থাপনা:

  • পশুর দেখাশোনা: প্রতিদিন পশুর সঠিক দেখাশোনা করতে হবে।
  • শারীরিক ব্যায়াম: পশুকে পর্যাপ্ত শারীরিক ব্যায়ামের সুযোগ দিতে হবে যাতে তাদের শরীর সুগঠিত হয়।

এই সব ব্যবস্থা মেনে চললে গবাদি পশু হৃষ্টপুষ্ট ও সুস্থ থাকবে, যা তাদের দুধ ও মাংসের উৎপাদন বাড়াতে সহায়ক হবে।

0 comments on “গবাদি পশু হৃষ্টপুষ্টকরণে করনীয় কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *